Content on this page requires a newer version of Adobe Flash Player.

Get Adobe Flash player

শেখ ইমরান হোসেনের লেকচারসমগ্র: কখন মালহামা সংঘটিত হবে? ( পূর্ণাঙ্গ অনুবাদ)



মালহামা

 

A MOUNTAIN OF GOLD – THE END TIMES (ISLAMIC ESCHATOLOGY PART 4)

১ম: মালহামা সংঘটিত হবার কত সময় বাকী অথবা কখন মালহামা সংঘটিত হবে – এর একটি জবাব আমাদের কাছে আছে।
২য়: আজ রাতে আমি আপনাদের সামনে সহীহ বোখারীর একটি হাদিস বলবো যেখানে আল্লাহর রাসুল সাল্লালাহু আলাইহিওয়াসাল্লাম বলছেন।
৩য়: ইউফ্রেটিস নদীর, (ফোরাত) যা ইরাকের উপর দিয়ে প্রবাহিত, নিচ থেকে সোনার একটি পাহাড় বের হবে ।
৪থ: সোনার পাহাড়, নদীর নিচ থেকে সোনার পাহাড়, সোনার পাহাড়, এবং মানুষেরা সেই সোনা নিয়ে লড়াই করবে।
৫ম : সোনার পাহাড়, নদীর নিচ থেকে সোনার পাহাড়, সোনার পাহাড়, এবং মানুষেরা সেই সোনা নিয়ে লড়াই করবে।
৬ষ্ঠ: এবং ১০০ জনের মধ্যে ৯৯ জন খুন হবে, যা থেকে বোঝা যাচ্ছে, সেই যুদ্ধ প্রচলিত যুদ্ধ হবে না, না।
৭ম: এবং ১০০ জনের মধ্যে ৯৯ জন খুন হবে, যা থেকে বোঝা যাচ্ছে, সেই যুদ্ধ প্রচলিত যুদ্ধ হবে না, না।
৮ম: এবং ১০০ জনের মধ্যে ৯৯ জন খুন হবে, যা থেকে বোঝা যাচ্ছে, সেই যুদ্ধ প্রচলিত যুদ্ধ হবে না, না।
৯ম: এটি হবে নিউক্লিয়ার যুদ্ধ, যে যুদ্ধে ১০০ জনের মধ্যে ৯৯ জন যোদ্ধা খুন হবে।
১০ম: আমরা যদি বলি এই যুদ্ধ হবে সোনার পাহাড় নিয়ে তাহলে তার একটি সৃদৃঢ় ভিত্তি থাকতে পারে।
১১তম: যারা সোনার পাহাড় নিয়ে যুদ্ধ করবে, তারা সকলেই বলবে – (এই যুদ্ধে) আমিই টিকে যাব।
১২ তম: কিন্তু আল্রাহর রাসুল (সা.) বলেছেন যে, সেই সময় যে সকল মুসলমান সেখানে উপস্থিত থাকবে, তাদের উচিত হবে না সেই সোনা স্পশ করা। [ তাদের উচিত হবে না সোনা (gold) স্পর্শ করা।]
১৩তম: সুতরাং আমরা যদি রাসুল সা. এর কথা মানি তাহলে ব্যাপারটি হবে মুসলমানরা মালহামায় মুসলমানরা যুক্ত থাকবে না, মালহামায় যুক্ত থাকবে অন্যরা।
১৪ তম : সুতরাং আমরা যদি রাসুল সা. এর কথা মানি তাহলে ব্যাপারটি হবে মুসলমানরা মালহামায় মুসলমানরা যুক্ত থাকবে না, মালহামায় যুক্ত থাকবে অন্যরা।
১৫ তম: যারা মুসলমান নয়, অথবা, সেই সকল মুসলমানরা যারা আল্রাহর রাসুলের অবাধ্য, তারা সেই মালহামায় যুক্ত হবে।
১৬তম: সুতরাং যারা তাফসির পাঠ করে বলেন নদীর নিচ থেকে সোনার পাহাড় বের হবে, তাহলে আপনাকে দীর্ঘ , দীর্ঘ, দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হবে।
১৭ তম : সুতরাং যারা তাফসির পাঠ করে বলেন নদীর নিচ থেকে সোনার পাহাড় বের হবে, তাহলে আপনাকে দীর্ঘ , দীর্ঘ, দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হবে।
১৮তম: অর্থাৎ এক দিন সেখানে পাত্র নিয়ে যাবে েএবং সেখানে গিয়ে এক খন্ড সোনা পারে এবং যা থেকে বোঝা যাবে যে সোনার পাহাড়
১৯ তম: নদীর তল দিয়ে বেরিয়ে এসেছে, এটিই হচ্ছে তাফসিরের কথা।
২০ তম: নদীর তল দিয়ে বেরিয়ে এসেছে, এটিই হচ্ছে তাফসিরের কথা।
২১ তম: হাদীস রয়েছে যেগুলো মুতাসাবিয়াত এবং সেগুলো তাবিল, সুতরাং উড়ন্ত গাঁধা
২২ তম: হাদীস রয়েছে যেগুলো মুতাসাবিয়াত এবং সেগুলো তাবিল, সুতরাং উড়ন্ত গাঁধা
২৩তম: হাদীস রয়েছে যেগুলো মুতাসাবিয়াত এবং সেগুলো তাবিল, সুতরাং উড়ন্ত গাঁধা
২৪তম: আমরা জানি, উড়ন্ত গাঁধা এখানেই আছে,সেটিই হচ্ছে আধুনিক বিমান এবং সেই স্বর্ণের পাহাড়ের জন্য লড়াই চলছে এবং সেটিই মালহামা।
২৫তম: আমরা জানি, উড়ন্ত গাঁধা এখানেই আছে,সেটিই হচ্ছে আধুনিক বিমান এবং সেই স্বর্ণের পাহাড়ের জন্য লড়াই চলছে এবং সেটিই মালহামা।
[শেষ]

অনুবাদ : মুহাম্মদ শামীম আখতার।


© Copyright
All rights reserved to Editor
Editor
Muhammad Shamim Akhter
Contact
Pallabi, Dhaka
Bangladesh
Mobile phone: 01536179630 / 01914042834
email: shamim2sh@gmail.com