Content on this page requires a newer version of Adobe Flash Player.

Get Adobe Flash player

বাংলাদেশে খোলা ও আবদ্ধ ড্রেনের নামে বৈষম্যের বলিরেখা টানা হচ্ছে: বিপন্ন হচ্ছে জনস্বাস্থ্য।



WP_20170309_021
মুহাম্মদ শামীম আখতার, বাংলাদেশমুভস, ঢাকা, ২৮ জমাদিউস সানি, ১৪৩৮, ১৫ চৈত্র, ১৪২৩, ২৮ মার্চ, ২০১৭: পাকিস্তানীদেও বিভিন্ন বৈষম্যের নানা দিক তুলে ধরে ১৯৭১ সালে যে স্বাধীনতা যুদ্ধের সূচনা এবং যে সূচনার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ নামক স্বাধীন দেশের জন্ম সেই দেশের জনগন যে নব্যস শাসকদেক কত শত কৌশলের বৈষম্যের যাঁতাকলে নিষ্পেষিত, তা গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ না করলে বোঝার কোন উপায় নেই। এরা যে দাজ্জালের খাস চামচা তাতে বুদ্ধিমান ও ইমানীচেতনা দৃপ্ত ব্যক্তিবর্গের কাছে বুঝতে কোন সমস্যা হওয়ার কথা না। ফেসবুকে বিষয়টি বহুভাবে তুলে ধরছি, তবু এই সাইটের পাঠকদের সামনে ও সেই একই বিষয় তুলে ধরছি। আমরা জানি দেশে নগরায়ন ঘটছে দ্রুত গতিতে কারণ শিল্প কারখানা করা হচ্ছে গুটিকয় শহরের মধ্যে ফলে জমিজিরাত বউ , মা বাপ স্বামী ছেড়ে বহু বাংলাদেশীকে আজ আশ্রয় নিতে হচ্ছে শহরে।১ কিন্তু সেই শহরের পয়োব্যবস্থাকে সামনে এনে – সেই পথ দিয়েই গণহত্যার একটি নীল নকশা বাস্তবায়িত হচ্ছে। আবদ্ধ ড্রেন হলে সঙ্গতকারনে জীবানু বাতাসে ছড়াতে পারেনা, কিন্তু দাজ্জালের চামচারা সেই খোলা ড্রেন করছে বুক ফুলিয়ে। এতে জীবানু সংক্রমিত হচ্ছে জনগনের পেটে এবং নানা প্রকার পীড়ায় আক্রান্ত হচ্ছে। জন্ডিস, ডায়রিয়ার মত রোগ তো দেশে অহরহ। একদিকে ডায়রিয়ার ক্ষেত্র তৈরী করা হচ্ছে আবার আরেকদিকে কোটি ডলারের ডায়রিয়া গবেষণাগার করা হয়েছে চিকিৎসা পাড়ায়, ফলে একটি শয়তানি চক্র শুরু হয়েছে চিকিৎিসা সেবার নামে। অধিকন্তু খোলা ড্রেন হলে মশার সংক্রমন হয় এবং সেই মশায় আক্রান্ত হয়েও বহু লোক কর্মক্ষমতা হারায় এবং রোগ ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়। মশার কামড়ে ছেলেমেয়ারা লেখাপড়াও করতে পারেনা। তবে ইজ্জত বাঁচাতে কিছু কিছু জায়গায় এখন আবদ্ধ ড্রেন করা হচ্ছে, কিন্তু সেই ড্রেনের ভিতরও ময়লা কাদা এবং নির্মান সামগ্রী বিশেষ করে বালি গিয়ে আরেকটি দুর্বিষহ পরিস্থিতি সৃষ্টি হচ্ছে। অথচ এই দাজ্জালী ব্যবস্থার বিরুদ্ধে এখনও তৌহিদী জনতা কোন জোর কর্মসূচি দেয়নি। অনেক নিরপেক্ষ সুশীল সমাজও মানব বন্ধন বা গোলটেবিল বলে চৌকো টেবিলে বসে কোন নীতিবাক্য প্রসব করেনি। এই অবস্থায় এই খোলা ড্রেনের জন্য ইমাম মাহদী পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে কিনা তা নিয়েও ইসলামী চিন্তাবিদদের মধ্যে বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।


© Copyright
All rights reserved to Editor
Editor
Muhammad Shamim Akhter
Contact
Pallabi, Dhaka
Bangladesh
Mobile phone: 01536179630 / 01914042834
email: shamim2sh@gmail.com