Content on this page requires a newer version of Adobe Flash Player.

Get Adobe Flash player

বসুন্ধরা কনভেনশন সেন্টারে আয়োজিত বিসিটি এক্সপো-১৭ তে মেটাল ক্রাফটের নান্দনিক সব রট আয়রন



1???????????????????????????????
বাংলাদেশমুভস, ১৮ মে, ২০১৭: আজ থেকে রাজধানীর কুড়িলে ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরার এক নম্বর হলে শুরু হয়েছে কাইটস ইন্টারন্যাশনালের আয়োজনে এবং বিকিএমইএর পৃষ্ঠপোষকতায় ইমারত নির্মান সংক্রান্ত প্রযুক্তি, কাঠের উপকরণ এবং গৃহের অভ্যন্তরীন ও বাহ্যিক সাজসজ্জা ও আলোক সজ্জার আধুনিক সব উপকরণ উৎপাদক, আমদনীকারকদের নিয়ে কাইটস ইন্টারন্যাশনাল ইন্টেরিওর ও এক্সটেরিওর লাইটিং এক্সপো, বিদ্যুৎ সজ্জার উপর আয়োজিত দ্বিতীয় আর্ন্তজাতিক এক্সপো। এই এক্সপো ২০ মে অবধি মোট তিন দিন সকাল ১০ টা থেকে রাত ৭ টা অবধি কোন প্রবেশ মূল্য ছাড়াই চলবে।
মেলা প্রাঙ্গনে ঘুরে দেখা গেছে আধুনিক ইমারত নির্মানের সাথে সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলোর উপস্থিতিতে সকাল থেকেই এক্সপো প্রাঙ্গন সরগরম হয়ে উঠেছে। বরাবরের মত এবারও অনেককে দেখা গেছে নতুন – একেবারেই নতুন কোন সামগ্রী এসেছে কিনা তা দেখার জন্য মেলা প্রাঙ্গনের এ পাশ থেকে ও পাশে ঘুরে বেড়িয়েছেন। নতুন কিছু আছে কি? ঠিক এই রকম এক অবস্থায় উন্নত বিশে^ প্রচলিত, কিন্তু বাংলাদেশে অপ্রচলিত একটি নতুন গৃহসজ্জা উপকরণ নির্মাতার একটি স্টল দেখে অনেকেই থেমেছেন, পণ্যের নমুনা গুলো দেখেছেন । আসলে একটি রট আয়রনের ফেন্সিং বা বেড়া উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের স্টল। বাংলাদেশের নিজস্ব কারখানায় এই রট আয়রন উৎপাদন করছেন ক্রাফট নামের এই প্রতিষ্ঠানটি। ঢাকার গাজীপুরের কোনবাড়ির বিসিক শিল্প প্লটে আছে প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব কারখানা ও অফিস।

যারা কেবল ইট পাথরের ঘরে বাস না করে সৌকর্যে ভরা একটি আবাসস্থলে নিজের ঠিকানা করে নিতে চান, তারা এই রট আয়রনের বেড়াগুলো দেখে অবশ্যই বিমোহিত হবেন এবং বাড়ির কোন না কোন প্রান্তে লাগানোয় সচেষ্ট হবেন। রট আয়রন দুটি ইংরেজি শব্দ, বাংলা করলে হয় মোড়ানো লোহা। হ্যাঁ লোহাকে মুড়িয়ে বিশেষ কিছুই হচ্ছে রট আয়রন বা মোড়ানো লোহা। আমরা লোহা চিনি, লোহার একটি বৈশিষ্ট্য এটিকে বাঁকানো যায়, যা অনেক ধাতুর ক্ষেত্রে হয় না। কাস্ট আয়রন বা লোহাকে বাঁকানো যায়, কিন্তু তা সাবলীলভাবে হয় না, এর জন্য লোহাকে বিশেষ ভাবে প্রস্তুত করতে হয়। কাস্ট আয়রনে যেখানে কার্বনের পরিমান ২.১% থেকে ৪%, সেখানে রট আয়রনে বা মোড়ানো লোহায় কার্বনের পরিমান ০.০৮% এরও নিচে । ইতিহাস থেকে জানা যায় ১৮৬০ এর দশকে ইউরোপে যুদ্ধ জাহাজ, রেলওয়েতে রট আয়রনের ব্যাপক প্রচলন শুরু হয়। কিন্তু মাইল্ড স্টীলের ভঙ্গুরতা রোধের ক্ষেত্রে উপাদানের উন্নতি ঘটায় এবং খরচ কম হওয়ায় রট আয়রনের ব্যবহার কমতে থাকে। ক্রমেই এর বানিজ্যিক ব্যবহার বন্ধ হয়ে কেবল বাগানের বেঁড়া সিঁড়ি বা ব্যালকনির নান্দনিকতা বৃদ্ধির মধ্যেই সীমিত হয়ে পড়ে। রট আয়রনের সুবিধা হচ্ছে এটি ইচ্ছেমত আকার ও রং করা যায়, ফলে লোহাই কাঠের উপকরনের মত দৃষ্টিনন্দন হয়ে উঠে। ভারতের কুতুব মিনারের সামনে একটি লোহার পিলার আছে, এটি রট আয়রন দিয়ে তৈরী, ফ্রান্সের আইফেল টাওয়ারও রট আয়রন দিয়ে তৈরী। অত্যন্ত পরিতাপের বিষয় হচ্ছে : এমন সুন্দর রট ফেন্সিং এর ব্যবহার বাংলাদেশে কেউ প্রচলন করেনি। ঢাকার মেটাল ক্রাফটই এই ধরনের ব্যবসায়িক উদ্যোগের পুরোধা। মেলা প্রাঙ্গনে মেটাল ক্রাফটের পরিচালক জনাব মো: শাহাদত হোসাইনের সাথে কথা হচ্ছিল। তাকে জিজ্ঞেস করছিলাম: “এমন একটি ভাল ব্যবসায়িক উদ্যোগ মাথায় এলো কী করে?” জবাবে বলেছিলেন, “ দেখুন, এই রট আয়রনের ফার্নিচার, ফেন্স বেড়ার ব্যবহার বাইরের দেশে খুব বেশি। আমারা তাদের বাড়ি ঘরের ছবিতে এতদিন এমন নান্দনিক লোহার বেঁড়া দেখেছি, কিন্তু এমন জিনিস যে আমাদের দেশেও প্রচলিত হওয়া উচিত – এমন একটি তাগিদ আমি দীর্ঘদিন ধরেই অনুভব করছিলাম। সেই রকম একটি তাগিদ থেকেই এই শিল্পে বিনিয়োগে আগ্রহী হই। বর্তমানে গাজীপুরের কোনাবাড়িতে আমাদের রয়েছে নিজস্ব ফ্যাক্টরী ও অফিস। আধুনিক যন্ত্রপাতি, দক্ষ জনবল নিয়ে আমরা ক্রেতার ঘরকে আরও আধুনিক করতে দিন রাত কাজ করে যাচ্ছি। আমরা বিশ^াস করি রট আয়রনের বেড়া, গেট প্রচলিত গেটের চেয়ে আরও বেশি আকর্ষনীয় ও নিরাপদ হবে। সুন্দর নকশা খোঁচিত বলে যে কোন গৃহই প্রথম দর্শনে মন কাড়বে।”
আমার কাছেও তার এই কথাগুলো বাস্তবসম্মত বলে মনে হয়েছে। কারণ আমাদের দেশে যে কাস্ট আয়রনের বেড়া দেখা যায় সেগুলো ইচ্ছেমত আকার দেওয়া যায় না, ফলে তা রট আয়রনের মত ভাল হয় না। এ ক্ষেত্রে শাহাদাত হোসেনের মেটাল ক্রাফট আসলেই ধাতবের একটি সৌকর্যমন্ডিত শিল্পকর্ম উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান। বাংলাদেশে অনেকেই বাড়ি করছেন – যা বাইরে দেখলে মনে হয় সেগুলো যেন জেল খানা, আবার কিছু বাড়ি দেখলে মনে হয়, তারা আসলেই ব্যতিক্রম ধরনের বাসস্থান নির্মান করছেন।
সবুজ গৃহায়ন নির্মানকারী এ রকম ইমারত নির্মাতাদের কাছে মেটাল ক্রাফটের পন্যের খবর পৌছে যাক, এমনটাই প্রত্যাশা। যোগাযোগ: জনাব মো: শাহাদাত হোসেন, ফোন: ০২ ৯২৯৭৭৮৮, মোবাইল ফোন: ১৬১২ ১৩২ ১৫২, ই-মেইল: mcraft@proknit.com.bd, ওয়েব: www.mcraft.com.bd
ফ্যাক্টরী : এস-৪৮, বিসিক শিল্প প্লট, কোনাবাড়ি, জয়দেবপুর, গাজীপুর-১৩৪৬, বাংলাদেশ।
( মূল্যায়ন: মুহাম্মদ শামীম আখতার)

নির্মান সামগ্রী হিসেবে রড আয়রনের বিচিত্র ব্যবহার:

WI-1

wi-2 wi-3

images


© Copyright
All rights reserved to Editor
Editor
Muhammad Shamim Akhter
Contact
Pallabi, Dhaka
Bangladesh
Mobile phone: 01536179630 / 01914042834
email: shamim2sh@gmail.com