Content on this page requires a newer version of Adobe Flash Player.

Get Adobe Flash player

আরোগ্যের সুযোগ না রেখে আল্লাহ কোন ব্যাধি সৃষ্টি করেননি।



hogans-history-age-of-exploration-discovery-38-638
মুহাম্মদ শামীম আখতার, বাংলাদেশমুভস, ২৮ রজব, ১৪৩৮, ১৩ বৈশাখ, ১৪২৪, ২৫ এপ্রিল, ২০১৭:: দুনিয়ার ভাল এবং মন্দ কোন অবস্থায় একটি সত্তার আশ্রয় নেওয়া ছাড়া মানুষের উপায় থাকে না, তিনি হচ্ছেন আল্লাহতায়ালা। কারন রোগব্যাধি দু:খ বেদনা যেমন তার কাছ থেকে আসে, সেই রোগব্যাধি এবং দু:খ যাতনা থেকে পরিত্রানও সেই সত্তা থেকে আসে। আজকে একটি বিশেষ রোগের কথা বলি, রোগটির নাম হচ্ছে – স্মল পক্স। আমার জীবনেই আশির দশকে এই পক্স হয়েছিল এবং আল্লাহর রহমতে তা সেরেও গিয়েছিল কিন্তু এখনও একটি কি দুটি দাগ মুখে আছে। এখন প্রবীন নাগরিকদের মুখে দেখবেন, ছোট ছোট গোলাকার দাগ। বললে তারা বলবেন, পক্স এর দাগ। নতুন প্রজন্মের মধ্যে অবশ্য এর অয়াবহতা কম। এর জন্য অবশ্য ভ্যাক্সিন এর উছিলা রয়েছে। কিন্তু এই রোগের প্রতিকার জানা ছিল না ১৭৯৬ সালের আগে। সেই প্রতিকার জানার পরও ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক পত্রিকার ১৯৭৮ সালের ডিসেম্বর মাসের একটি সংখ্যা জানান হয় যে বিশ্ব সংস্থা ১৯৭৮ সালে বিশ্বের কোথাও স্মল পক্স আক্রান্ত রোগী পাননি। মধ্যযুগ বলে যে যুগকে পশ্চিমারা বলে সেই সময়ে এবং তারও আগে মধ্যপ্রাচ্য থেকে খ্রীস্টান কুসেডাররা ফিরে যাবার পর ব্যাপকভাবে স্মল পক্সে আত্রান্ত হয়ে মারা যায়। কিন্তু অদ্ধুত ব্যাপার কি জানেন এই রোগের প্রতিকার ছিল গরুর স্মল পক্সের জীবাণুর মধ্যে। এক গো-দুগ্ধ সংগ্রহকারী পক্সে আক্রান্ত থাকার পর যখন দুধ দোহন করতে গরুর পক্সের সংস্পর্শে আসে, তখন তার স্মল পক্স সেওে যায়। এই ঘটনাটি পর্যবেক্ষন করেন যুক্তরাজ্যেও এক ইংরেজ ডাক্তার এডওয়ার্ড জেনার সেই জ্ঞান প্রয়োগ করেন একজন শক্ত সামর্থবার বালকের বাহুতে। এরফলে সেই বালকের শরীরে স্মল পক্স এর প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়, এবং সুস্থ তাকে। অর্থাৎ গরুর পক্সই মানুষের পক্স নিরাময়ের ঔষধ, যা পরবর্তীতে ভ্যাক্সিন আকারে পৃথিবীর বিভিন্ন অংশে প্রয়োগ করা হয়।Cow Pox -2???????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????
যে কারনে এই ঘটনাটির অবতারণা তা হচ্ছে স্মল পক্সের প্রতিরোধক ঔষধ আবিষ্কারের মাধ্যমে প্রমাণিত হলো যে, আল্লাহর রাসুল হযরত মুহাম্মদ সা. আজ থেকে ১৪ শত বছরের বেশি সময় আগে যে কথা বলেছিলেন, তা ছিল চরম সত্য, কারণ এই সত্য তাকে মানুষের সৃষ্টিকর্তা আল্লাহই শিখিয়েছিলেন। বুখারী শরীফের ৭ নং ভল্যুমের ৫৮২ নং হাদীস। হাদিসটি হযরত আবু হুরায়রা রা. হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, আল্লাহর রাসুল সাল্লালাহু আলাইহিওয়াসাল্লাম বলেন,“শেফা বা আরোগ্য না দিয়ে আল্লাহ কোন রোগ সৃষ্টি করেননি।” স্মল পক্স এর কথা যেমন ডায়রিয়ার কথাও তেমনি। এরও প্রতিকার হচ্ছে লবনে। লবন যেমন সমুদ্রে নিক্ষিপ্ত পঁচা জিনিসকে নি:শেষ করে দেয়, তেমনি তা পাকস্থলীতে বা ক্ষুদ্রান্ত্র ও বৃহদন্ত্রে জমে থাকা সেই ব্যাকটেরিয়া ভাইরাসকেও ধ্বংস করে দেয়, যার কারনে কেবল পানি বের হয়ে শরীরকে দুর্বল করে দেয় এবং মৃত্যু ঘটায়।
সুরা নিসার আয়াত নং ৮০ তে আল্লাহ বলেন, “যে লোক রসূলের হুকুম মান্য করবে সে আল্লাহর হুকুম মান্য করল। আর যে লোক বিমুখতা অবলম্বন করল, আমি আপনাকে (হে মুহাম্মদ), তাদের জন্য রক্ষণাবেক্ষণকারী নিযুক্ত করে পাঠাইনি।”
এই আয়াত থেকে আমরা বুঝলাম আল্লাহর রাসুলের সেই কথা আল্লাহরই ছিল এবং বাস্তব অবস্থার প্রেক্ষিতে তার সত্যতাও প্রমাণিত হচ্ছে।
আমরা খেয়াল করছি পৃথিবীতে সহজ চিকিৎসা যা আল্লাহর গাছ গাছালি, মিনারেল বা অন্য কোন উপায়ে দিয়েছেন, তাকে মানুষের মধ্যে প্রয়োগ না করে কোটি কোটি টাকা গবেষণাগারে অপচয় করে কৃত্রিম ঔষধ যাকে বলে সিনথেটিক ওষুধ আবিষ্কার করা হচ্ছে। একজন লোকের যেখানে একটি ওষুধেই রোগ সারানো যায়, তাকে এক ডজন করে ওষুধ খাইয়ে রোগ নয়, বরং সেই ওষুধ দিয়েই তাকে ধীরে ধীরে হত্যা করা হচ্ছে এবং তাদের গবেষণার অর্থ সংগ্রহ করা হচ্ছে। সহজ সমাধান যে গাছ গাছালি তা অত্যন্ত পরিকল্পিত উপায়ে কেটে ফেলা হচ্ছে এবং প্রাচীন চিকিৎসা শাস্ত্রকেও খরচ বহুল করে সুস্থ পরিবারকে দেনা দায়িক করে তাদেরকে নতুন রোগি বানানো হচ্ছে। এই অবস্থায় আমাদের চিকিৎসা শাস্ত্র নিয়ে আল্লাহর সিদ্ধান্ত বুঝতে হবে এবং সুস্থতা লাভ করে আল্লাহর শুকরিয়া আদায় করতে হবে। চিকিৎসার নামে দেশে বিদেশে যে নতুন ঔষধ আর ডায়গোনোসিসের বাণিজ্য তৈরী হয়েছে – তার বোঝা থেকেও নিজেদেরেকে বেঁচে থাকার পথ বের করতে হবে। শব্দ: ৫৬৬


© Copyright
All rights reserved to Editor
Editor
Muhammad Shamim Akhter
Contact
Pallabi, Dhaka
Bangladesh
Mobile phone: 01536179630 / 01914042834
email: shamim2sh@gmail.com